আইপিএল ২০১৬ নিলাম – কোন দল কী ভাবছে

বছরের শুরুতে ক্রিকেট খেলিয়ে দেশগুলো সবসময়ই ব্যস্ত থাকে। এ বছরও ভারত-অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তান সিরিজ সবে শেষ হল, দক্ষিণ আফ্রিকায় এখনো খেলছে ইংল্যান্ড। তার সঙ্গে বাংলাদেশে শুরু হয়েছে অনূর্দ্ধ-১৯ বিশ্বকাপ।

আর এত কিছুর মধ্যেই আস্তে আস্তে বাজছে নবম আইপিএলের দামামা। চেন্নাই আর রাজস্থানের বদলে নতুন দুই দল এসেছে পুনে এবং রাজকোট। ড্রাফট থেকে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি, স্টিভ স্মিথ, সুরেশ রায়না, অজিঙ্ক রাহানেদের মত পাঁচ জন করে খেলোয়াড় তুলে নিয়েছে তারা।

বাকি খেলোয়াড়দের জন্য তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে ৬ই ফেব্রুয়ারীর নিলামের দিকে। এর মধ্যেই নিলামের জন্য খেলোয়াড়দের বেস প্রাইস ঘোষণা হয়ে গেছে। যুবরাজ সিংহ, কেভিন পিটারসেন, ইশান্ত শর্মা সহ মোট দশ জন খেলোয়াড় তাঁদের বেস প্রাইস ধার্য্য করেছেন সর্বোচ্চ দু কোটি টাকা।

কিন্তু খেলোয়াড়দের কাছে যাওয়ার আগে দেখে নেওয়া যাক এই মুহূর্তে আইপিএলের এবারের দলগুলোর মধ্যে কার কোন বিভাগে শক্তি বৃদ্ধির প্রয়োজন। নিলামে কোন দলের স্ট্র্যাটেজি ঠিক কী হবে? কে ছুটবে ফাস্ট বোলারদের পেছনে আর কাদের দরকার একজন প্রথম শ্রেণীর উইকেটকিপার?

দিল্লী ডেয়ারডেভিলস

(নিলামের বাজেট – ৩৭.১৫ কোটি)

আট মরশুম খেলার পরেও দিল্লীই একমাত্র দল যারা একবারের জন্যেও ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে। বিশেষত শেষ তিন মরশুমে দিল্লী দুবার শেষ করেছে আট দলের মধ্যে অষ্টম স্থানে এবং একবার সপ্তম স্থানে। একের পর এক বড় খেলোয়াড় দলে এসেছেন, খেলেছেন, আবার চলে গেছেন, কিন্তু দিল্লীর খেলায় কোনও ধারাবাহিকতা দেখা যায়নি। গত বছরের দলেও যুবরাজ সিংহ এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজের মত দুজন আন্তর্জাতিক মানের অল-রাউন্ডার থাকা সত্ত্বেও চোদ্দটার মধ্যে মাত্র পাঁচটা ম্যাচে জিততে পেরেছিল দিল্লী।

এ বছর এমনিতেই গত বছরের দল থেকে এগারো জনকে ছেড়ে দিয়েছে তারা। তাদের হাতে এখন ৩৭.১৫ কোটি টাকা। তাই নিলামের দিন দিল্লীর টেবিল যে ব্যস্ত থাকবে সেটা বলাই যায়।

দলে শ্রেয়স আইয়ার বা ময়াঙ্ক আগরয়ালের মত তরুণ তুর্কীরা থাকলেও ব্যাটিং অর্ডারের ফাঁকফোকর ভরানোর জন্য দিল্লীর দরকার একজন বিশ্বমানের টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান। কেভিন পিটারসেন এর আগে দিল্লীতে খেলে গেছেন, আর সদ্যসমাপ্ত বিবিএলের পারফর্মেন্সের ভিত্তিতে বলাই যায় যে, আইপিএলেও হতাশ করবেন না তিনি। এছাড়া তরুণ বিদেশী খেলোয়াড়দের মধ্যে মার্টিন গাপ্টিল বা উসমান খোয়াজার কথাও বলা যায়। শেন ওয়াটসন বা মাইকেল হাসির মধ্যে যেকোন একজনকেও টার্গেট করতে পারে তারা।

ফাস্ট বোলিং বিভাগেও দিল্লীর শক্তি বৃদ্ধির দরকার আছে। বিশেষ করে গোটা আইপিএল জুড়ে জাহির খানের খেলার নিশ্চয়তা কেউই দিতে পারবেন না। ইশান্ত শর্মা এবং আশীষ নেহরার মত ঘরের ছেলে ছাড়াও মোহিত শর্মা, ইরফান পাঠান, বরিন্দর স্রান, এমনকি ডেল স্টেনের পেছনেও ছুটতে পারে তারা।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – অমিত মিশ্র, জয়ন্ত যাদব, ময়াঙ্ক আগারয়াল, মহম্মদ শামি, সৌরভ তিওয়ারি, শাহবাজ নাদীম, শ্রেয়স আইয়ার, জাহির খান।

(বিদেশী) – অ্যালবি মর্কেল, ইমরান তাহির, জাঁ পল ডুমিনি, কুইন্টন ডি কক, নাথান কুল্টার-নাইল।

___________________________________________________________________________________________________

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব

(নিলামের বাজেট – ২৩ কোটি)

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের খেলায় ধারাবাহিকতার বড্ড অভাব। ২০১৪ সালের ফাইনালে অল্পের জন্য রানার্স হওয়ার পর ২০১৫ সালের আইপিএলে কিংসরা শেষ করে অষ্টম স্থানে। ২০১৪ এর সাফল্যের ভিত্তিতে নিজেদের দলকে গুছিয়ে নিতে পারেনি তারা।

খাতায়-কলমে কিন্তু কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বেশ শক্তিশালী দল। যদিও বীরেন্দ্র সেহওয়াগের অবসর তাদের দলের এক্স-ফ্যাক্টর কিছুটা কমিয়ে দিয়েছে, কিন্তু এখনও তাদের দলে আছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের মত বিধ্বংসী মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। তাঁকে সঙ্গত দেবেন মুরলী বিজয়, মনন ভোরা, ঋদ্ধিমান সাহা, এবং ডেভিড মিলারের মত ব্যাটসম্যানরা।

কিংসের মূল দুর্বলতা বোলিং শক্তিতে। সন্দীপ শর্মা, অনুরীত সিং, বা শার্দুল ঠাকুরের মত তরুণরা থাকলেও দলের বোলিংকে নেতৃত্ব দেওয়ার দায়ীত্ব প্রধানত এসে পড়ে মিচেল জনসনের ওপরে। আর আইপিএলে জনসনকে সেরকম বিধ্বংসী ফর্মে খুব একটা দেখা যায়নি।

দলে অক্সর প্যাটেল ছাড়া ভালো স্পিনারের অভাবও ভোগায় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে। এই দিকটাতেও নজর দিতে পারে তারা।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – অক্সর প্যাটেল, গুরকিরত মান, মনন ভোরা, অনুরীত সিং, মূরলী বিজয়, ঋষি ধাওয়ান, সন্দীপ শর্মা, নিখিল নায়েক, ঋদ্ধিমান সাহা, শার্দুল ঠাকুর।

(বিদেশী) – গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ডেভিড মিলার, শন মার্শ, মিচেল জনসন।

___________________________________________________________________________________________________

কলকাতা নাইট রাইডার্স

(নিলামের বাজেট – ১৭.৯৫ কোটি)

আইপিএলের অন্যতম সফল দল এখন কলকাতা নাইট রাইডার্স। গতবার অল্পের জন্য প্লে-অফে পৌছতে না পারলেও ২০১২ আর ২০১৪ সালের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন তারা। যেকোন সফল দলের মত কেকেআর দলটাও এই মুহূর্তে বেশ গুছোনো।

ব্যাটিং-এ গৌতম গম্ভীর, রবিন উথাপ্পা, ক্রিস লিন, মনীশ পান্ডেরা আছেন। বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়ায় শেষ ওয়ান-ডেতে মনীশের ম্যাচ-জেতানো শতরান তাঁর আত্মবিশ্বাস বেশ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে।

বিশ্বের এক নম্বর অল-রাউন্ডার শাকিব ছাড়াও দলে আছেন আন্দ্রে রাসেল আর ইউসুফ পাঠান।

স্পিন বোলিং-এর প্রধান অস্ত্র এখনো সুনীল নারাইন। যদিও তাঁর নতুন অ্যাকশানে সুনীল কতটা সফল হতে পারবেন সেটা সময় বলবে। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে পীযূষ চাওলা আর কুলদীপ যাদবের বর্তমান ফর্ম গৌতম গম্ভীরের মুখের হাসি চওড়া করবে।

নিলামে কলকাতার টার্গেট হতে পারেন কোন ফাস্ট বোলার কারণ এই মুহূর্তে দলে উমেশ যাদব আর মর্নি মর্কেল ছাড়া সেরকম কোন ফাস্ট বোলার নেই এবং এঁদের ব্যাক-আপের প্রয়োজন হবে। তাই মুস্তাফিজুর রহমান, কৃষ্ণ দাস, বা বরিন্দর স্রানের মত তরুণ বোলারদের পেছনে ছুটতে পারে কলকাতা।

কেকেআরের এ বছরের কোচ জাক ক্যালিস নিজে খেলার সময় তিন নম্বরে নেমে ইনিংসের ভিত গড়তেন। এ বছর সেই ভূমিকার জন্য নিলামে শেন ওয়াটসন বা ডোয়েন স্মিথের মত কাউকে টার্গেট করতেই পারে তারা। যদিও শোনা যাচ্ছে ইংল্যান্ড উইকেট-কিপার জস্‌ বাটলারকে টার্গেট করেছে কেকেআর। ইংল্যান্ড জাতীয় দলের বর্তমান কোচ ট্রেভর বেইলিস এর আগে কেকেআরের কোচ ছিলেন; তাঁর কথা মতই নাকি বাটলার নিজেকে তৈরী করছেন আইপিএলে খেলার জন্য। দেড় কোটি টাকা বেস প্রাইসের বাটলারকে নিতে আর কেউ ঝাঁপায় কিনা সেটা দেখা যাবে নিলামের দিন। বাটলারকে নিলে শুধু একজন আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান নয় উইকেট-কিপারের সমস্যাও মিটবে কেকেআরের। গোটা আইপিএলের জন্য শুধু রবিন উথাপ্পা আর শেল্ডন জ্যাকসনের ওপর ভরসা করা মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ হবে না।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – গৌতম গম্ভীর, মনীশ পান্ডে, রবিন উথাপ্পা, সূর্যকুমার যাদব, পীযূষ চাওলা, কুলদীপ যাদব, উমেশ যাদব, ইউসুফ পাঠান, শেল্ডন জ্যাকসন।

(বিদেশী) – আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারাইন, শাকিব আল হাসান, ব্র্যাড হগ, ক্রিস লিন, মর্নি মর্কেল।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

(নিলামের বাজেট – ১৪.৪০৫ কোটি)

কেকেআরের মত মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সও আইপিএলের সবচেয়ে সফল দলগুলির মধ্যে একটি। গত ছয় মরশুমে প্রত্যেকবার শেষ চারে গেছে তারা। দল গঠনের ব্যাপারেও কোন রকম কার্পণ্য করেনি নীতা আম্বানির দল।

দলে রোহিত শর্মা, হরভজন সিংহ, লাসিথ মালিঙ্গার মত অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের সঙ্গে সঙ্গেই আছে যশপ্রিত বুমরা, হার্দিক পান্ডিয়া, জগদীশ সুচিথদের মত তরুণ খেলোয়াড়রা। দলে ফায়ার-পাওয়ার যোগ করবেন কায়রন পোলার্ড, কোরি অ্যান্ডারসন, লেন্ডল সিমন্সরা।

তাই সেভাবে দেখতে গেলে মুম্বাইয়ের এই মুহূর্তে তেমন দুর্বলতা কিছু নেই। আর মাত্র ১৪ কোটি টাকার বাজেট নিয়ে মুম্বাই খুব বেশী নামী খেলোয়াড়ের পেছনে ছুটতে হয়ত পারবে না। তবে মুম্বাই সাধারণতঃ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিতে পছন্দ করে। সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে অ্যারন ফিঞ্চ, উসমান খোয়াজা, বা মার্টিন গাপ্টিলের জন্য হয়তো নিলামে উৎসাহী হতে পারে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – রোহিত শর্মা, হরভজন সিংহ, আম্বাতি রায়াডু, হার্দিক পান্ডিয়া, যশপ্রিত বুমরা, জগদীশ সুচিথ, বিনয় কুমার, পার্থিব প্যাটেল, উন্মুক্ত চাঁদ, শ্রেয়স গোপাল, সিদ্ধেশ লাড, নিতিশ রানা, অক্ষয় ওয়াখ্রে।

(বিদেশী) – কোরি অ্যান্ডারসন, মিচেল ম্যাকক্লেনাহান, কায়রন পোলার্ড, লাসিথ মালিঙ্গা, লেন্ডল সিমন্স, মার্শঁ ডি ল্যাঙ্গ ।

___________________________________________________________________________________________________

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর

(নিলামের বাজেট – ২১.৬২৫ কোটি)

গত আট বছরের আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের পারফর্মেন্স নিয়ে বোধ হয় সবচেয়ে বেশী নিউজপ্রিন্ট খরচা হয়েছে। বছরের পর বছর দুর্দান্ত দল বানিয়েও চূড়ান্ত সাফল্যে কোনদিন পৌঁছতে পারেনি তারা।

সব সময়ই মনে হয়েছে যে বড় নামের পেছনে ছুটতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত ব্যালান্সড দল গড়তে ব্যর্থ হয় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স। এবারের দলেও ক্রিস গেল, বিরাট কোহলি, এ বি ডি ভিলিয়ার্সের মত উচ্চ মানের ব্যাটসম্যানরা আছেন, কিন্তু লোয়ার মিডল অর্ডারের দায়িত্বে রয়েছেন মনদীপ সিং, সরফরাজ খানের মত অপেক্ষাকৃত অনভিজ্ঞ খেলোয়াড়। সেই কারণেই নিলামের আগেই কেদার যাদবকে তুলে নিয়েছে তারা। বোলিং বিভাগেও মিচেল স্টার্ক ছাড়া বাকিরা অর্থাৎ বরুণ অ্যারন, শ্রীনাথ অরবিন্দ, যজুবেন্দ্র চাহালরা সেভাবে বিশ্বমানের নয়।

তাই নিলামে একজন ভালো ব্যাটসম্যান ও দুজন বিশ্বমানের বোলারের প্রতি লক্ষ্য থাকবে তাদের। বিশেষ করে মিচেল স্টার্কের ফিটনেস নিয়ে চিন্তায় থাকবে টিম ম্যানাজমেন্ট। তাই কেন রিচার্ডসন বা টিম সাউদির মত পেসারদের টার্গেট করতে পারে তারা।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – বিরাট কোহলি, মনদীপ সিং, সরফরাজ খান, কেদার যাদব, শ্রীনাথ অরবিন্দ, হর্ষল প্যাটেল, আবু নাচিম, যজুবেন্দ্র চাহাল, বরুন অ্যারন।

(বিদেশী) – এ বি ডি ভিলিয়ার্স, ক্রিস গেল, মিচেল স্টার্ক, অ্যাডাম মিলনে, ডেভিড উইসে।

___________________________________________________________________________________________________

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ

(নিলামের বাজেট – ৩০.১৫ কোটি)

ডেকান চার্জার্সের পরিবর্তে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ আইপিএল খেলতে শুরু করেছে ২০১৩ সাল থেকে। শুরুটা ভালো হলেও শেষ দুটো মরশুম লিগ টেবিলের নিচের দিকেই শেষ করতে হয়েছে তাদের। দলে বেশ কিছু ভারতীয় এবং বিদেশী তরুণ খেলোয়াড় থাকা সত্ত্বেও সেরকম ভারী নাম বলতে শুধু ডেভিড ওয়ার্নার আর শিখর ধাওয়ান। ডেল স্টেনকেও ছেড়ে দিয়েছে তারা।

নমন ওঝা, কে এল রাহুল, কর্ণ শর্মা, পারভেজ রসুলদের ওপর অনেকটাই নির্ভর করবে সানরাইজার্সের সাফল্য। কেন উইলিয়ামসন এবং ট্রেন্ট বোল্ট যদি তাদের গত এক বছরের আন্তর্জাতিক ফর্মকে আইপিএলে সঙ্গে নিয়ে আসতে পারেন তাহলে লাভ হবে সানরাইজার্সেরই।

৩০ কোটি টাকা হাতে নিয়ে সানরাইজার্স নিলামে যুবরাজ, পিটারসেন, ওয়াটসন, বা মাহেলা জয়বর্ধনের মত বড় নামের জন্য লড়াই করতেই পারে। তার সঙ্গেই নজর থাকবে নিজেদের বোলিং শক্তি বাড়িয়ে নেওয়ার দিকে।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – শিখর ধাওয়ান, নমন ওঝা, কে এল রাহুল, পারভেজ রসুল, কর্ণ শর্মা, বিপুল শর্মা, ভুবনেশ্বর কুমার, রিকি ভুই, সিদ্ধার্থ কউল, আশীষ রেড্ডি।

(বিদেশী) – ডেভিড ওয়ার্নার, ইয়ন মর্গান, মোজেস হেনরিকস, কেন উইলিয়ামসন, ট্রেন্ট বোল্ট।

___________________________________________________________________________________________________

রাইজিং পুণে সুপার জায়ান্টস

(নিলামের বাজেট – ২৭ কোটি)

ড্রাফটে পাঁচজন খেলোয়াড় তুলে নেওয়ার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে টিম পুণে তাদের টপ অর্ডার ব্যাটিং সাজিয়ে ফেলেছে রাহানে, স্টিভ স্মিথ, আর ফাফ দু প্লেসিকে দিয়ে। সঙ্গে ধোনি এবং অশ্বিন। কিন্তু ফিনিশার থেকে শুরু করে ফাস্ট বোলার, অলরাউন্ডার, ব্যাক-আপ কিপার—সব বিভাগেই খেলোয়াড় কেনায় মন দেবে তারা।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

-(ভারতীয়) – মহেন্দ্র সিংহ ধোনি, রবিচন্দ্রণ অশ্বিন, অজিঙ্ক রাহানে।

(বিদেশী) – স্টিভ স্মিথ, ফাফ দু প্লেসি।

___________________________________________________________________________________________________

গুজরাট লায়ন্স

(নিলামের বাজেট – ২৭ কোটি)

পুণের মত রাজকোটের দলও ড্রাফট থেকে তাদের পছন্দের পাঁচ খেলোয়াড় বেছে নিয়েছে। যদিও পুণের মত শুধু ব্যাটসম্যানদের পেছনে ছোটার বদলে রাজকোট দলে নিয়েছে চার জন অলরাউন্ডার। সুরেশ রায়না, রবীন্দ্র জাদেজা, বা ডোয়েন ব্র্যাভোরা আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল খেলোয়াড়দের মধ্যে পড়েন। সঙ্গে রয়েছেন বিধ্বংসী ব্রেন্ডন ম্যাকালাম। এদের মধ্যে রায়নাকে দলের অধিনায়ক ঘোষণাও করে দিয়েছে তারা।

নিলামে যে নিজেদের টপ অর্ডার ব্যাটিং আর বোলিং-এর দিকে নজর দেবে রাজকোট, তা সহজেই অনুমেয়।

___________________________________________________________________________________________________

বর্তমান দলঃ

(ভারতীয়) – সুরেশ রায়না, রবীন্দ্র জাদেজা।

(বিদেশী) – ব্রেন্ডন ম্যাকালাম, ডোয়েন ব্র্যাভো, জেমস ফকনার।

___________________________________________________________________________________________________

প্রতিবারের মত এবারও আইপিএলের নিলামে যাওয়ার আগে দলগুলি তাদের নিজস্ব স্ট্র্যাটেজি ছকে ফেলেছে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের হিসেবনিকেশ।

নিলামের দিন হয়তো কোন অপেক্ষাকৃত অখ্যাত, অনামী খেলোয়াড়কে নিয়ে টানাটানি চলবে দুই বা ততোধিক দলের মধ্যে। আবার ঋষভ পন্থ বা আভেশ খানের মত অনুর্দ্ধ-১৯ বিশ্বকাপে নজরে পড়া কোন তরুণ খেলোয়াড় হয়ে উঠতেই পারেন এবারের নিলামের তারকা। কারণ যে কোন দলের আইপিএলে সাফল্যের প্রথম ধাপ শুরু হয় নিলামের টেবিলেই।

~তপোব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়

ছবি  সৌজন্যে : imikritva.com 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s